ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি সিরাজগঞ্জ

Sirajganj, Rajshahi Division, Bangladesh

Details

আমাদের দেশের ভালো লাইব্রেরিব্যবস্থা দিন দিন উন্নত হচ্ছে ।এর ই ধারাবাহিকতায় লাইব্রেরিগুলো সংখ্যায় বৃদ্ধি হচ্ছে, এদের ব্যবস্থাপনা দুর্বল থেকে উন্নত হচ্ছে, বইয়ের মান দুঃখজনক এবং পরিবেশ বিমর্ষ অবস্তা হলেও ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি আজ তা পরিবর্তন করছে। ভালো বই বাড়িতে নিয়ে পড়ার সুযোগ পাঠকদের আজ নেই বললেই চলে কিন্ত ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি তা পরিবর্তন করেছে। এমন অবস্থা চলতে থাকলে একসময় জাতির মননশীলতা ও জ্ঞানতাত্ত্বিক ভিত্তি মজবুতবে? বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের পক্ষ থেকে তাই দেশের প্রতিটি বাড়ির দোরগোড়ায় বই পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে।

১৯৯৯ সালে ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি প্রথমে চালু হয় দেশের চারটি বড় শহরেঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা ও রাজশাহীতে। এরপর বড় হয়ে আজ ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি ২০১৪ সালে দেশের ৫৮টি জেলার মোট ২৫০টি উপজেলার ১৯০০ লোকালয়ে কার্যক্রম পরিচালনা করছে, অর্থাৎ ১৯০০ ছোট লাইব্রেরির কাজ করছে। এই লাইব্রেরিগুলোর বর্তমান সদস্যসংখ্যা এক লক্ষ তিরিশ হাজার।দেশভিত্তিক উৎকর্ষ কার্যক্রম ও পাঠাভ্যাস উন্নয়ন কার্যক্রমের পাশাপাশি সারা দেশে গড়ে তোলা হয়েছে ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি। এর ই ধারাবাহিকতায় সিরাজগঞ্জ ও রয়েছে ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি যা সারা সাপ্তাহ পুরো সিরাজগঞ্জ জেলার আনাচে কানাচে ঘুরে ঘুরে সবরের দোড়গোড়ায় পৌছায়ে দেয় তাদের কর্যক্রম। এর ফলে বই পড়ুয়াদের মাঝে এক অনন্য সুবিধা হয়েছে। খুব কম খরচে পাঠকেরা তাদের পছন্দ মত বই বাসায় নিয়ে পড়তে পারছে।

ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি এর গাড়ির ব্যাবস্থা :

ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরির গাড়িগুলো ৭টি ভিন্ন ভিন্ন ধরনের রয়েছে এগুলোতে থাকে যথাক্রমে ৪০০০, ৬০০০, ৮০০০, ১১০০০ ও ১৭০০০ বই। প্রতিটি লাইব্রেরি প্রতি সপ্তাহে শহর ও গ্রামএলাকার গড়ে ৪০টি এলাকায় গিয়ে আধঘণ্টা থেকে দুঘণ্টা পর্যন্ত্ম সদস্যদের মধ্যে বই দেওয়ানেওয়া করে। সপ্তাহের কোন দিনে কটার সময় কোন গাড়ি কোন এলাকায় কোথায় যাবে তা আগে থেকেই ঠিক করা আছে।

বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের বই

বাংলা সাহিত্যের বই

  • গল্প
  • প্রবন্ধ
  • নাটক
  • কবিতা
  • রম্য রচনা
  • উপন্যাস ও ভ্রমণ কাহিনী
  • জীবনী, আত্মজীবনী

 

শিশু-কিশোর সাহিত্যের বই

  • গল্প ও উপন্যাস
  • রূপকথা
  • ছড়া ও কবিতা
  • সংকলন

বিশ্বসাহিত্য

  • উপন্যাস
  • গল্প
  • মহাকাব্য
  • কবিতা
  • নাটক (গ্রিক নাটক, ফরাসি নাটক, মার্কিন নাটক, সুইডিশ নাটক, রুশ নাটক, আয়ারল্যান্ড)

 

বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র গ্রন্থাগার – এর সদস্য হওয়ার নিয়মাবলি

গ্রন্থাগারের সদস্যপদ লাভ

ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরির দুটো সুযোগ রয়েছে দুটো সুযোগ রয়েছে – এক: পাঠকক্ষে বসে পড়া; দুই: গ্রন্থাগারের সদস্য হয়ে বাড়িতে বই নেয়া।

যথাযথ আবেদনপত্র পূরণের মাধ্যমে সদস্যপদের জন্য তিন কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি সহ আবেদন করতে হবে। আবেদনপত্র গৃহীত হলে সদস্য হওয়া যাবে।

কাউকে সদস্যপদ দেয়া, না দেয়া বা পরিস্থিতিগত কারণে কারো সদস্যপদ বাতিল করার পূর্ণ ক্ষমতা গ্রন্থাগার কর্তৃপক্ষের থাকবে।

সদস্যকার্ড সদস্যকে নিজের কাছে রাখতে হবে। ঐ কার্ডের সাহায্যেই তিনি লাইব্রেরির বই দেয়া-নেয়া করবেন। প্রয়োজন হলে সদস্য নিজে না এসে অন্য কারো মাধ্যমেও বই দেয়া-নেয়া করতে পারবেন। এক্ষেত্রে সদস্য যাকে পাঠাবেন তার হাতে তাঁর স্বাক্ষরিত অনুরোধপত্র পাঠাতে হবে। তবে বই-এর দায়িত্ব সদস্যকেই বহন করতে হবে।

নিরাপত্তা অর্থ, মাসিক চাঁদা ও কার্ড সংরক্ষণ

এই লাইব্রেরির সদস্য হতে হলে নির্ধারিত নিরাপত্তা অর্থ জমা দিতে হবে। নিরাপত্তা অর্থ জমা নেয়ার সময় হিসাব বিভাগের প্রয়োজনে সদস্যের নমুনা স্বাক্ষর ও এক কপি সম্প্রতি তোলা পাসপোর্ট সাইজের ছবি প্রয়োজন হবে।

নিরাপত্তা অর্থের পরিমাণ ১০০ ও ২০০ টাকা (যাঁরা নিরাপত্তা অর্থবাবদ একশত টাকা প্রদান করবেন তাঁদেরকে সাধারণ সদস্য এবং যাঁরা দুইশত টাকা প্রদান করবেন তাঁদেরকে বিশেষ সদস্য হিসাবে বিবেচনা করা হবে। সাধারণ সদস্য অনাধিক ১৫০ টাকার ও বিশেষ সদস্য  অনাধিক ২৫০ টাকা মূল্যের বই নিতে পারবেন।

নিরাপত্তা অর্থ ফেরতযোগ্য। তবে সদস্য হওয়ার এক বছরের মধ্যে নয়। সদস্য পদ থেকে অব্যাহতি চাইলে নিরাপত্তা অর্থ ফেরত নেবার আবেদন করতে হবে। আবেদন করার একমাস পরে টাকা ফেরত দেয়া হবে।

মাসিক গ্রন্থাগার চাঁদা ১০.০০ টাকা। ষান্মাষিক বা বার্ষিক ভিত্তিতে অগ্রিম চাঁদা দেয়া বাঞ্ছনীয়। তবে একসঙ্গে ছ’মাস বা এক বছরের চাঁদা দিতে অসমর্থ হলে ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে চাঁদা দেয়া যেতে পারে।

জরিমানা/চাঁদা বাকি পড়ার কারণে একসময় নিরাপত্তা অর্থ শেষ হয়ে গেলে স্বাভাবিকভাবে সদস্যপদ বাতিল হয়ে যাবে। সদস্যপদ নবায়ন করতে হলে তাকে পুণরায় নিরাপত্তা অর্থ প্রদান করতে হবে।

বই নেয়া

‘সংরক্ষিত’, ‘রেফারেন্স’ সিল অংকিত এবং ‘ইস্যুর জন্য নয়’ চিহ্নিত  থাকের বইগুলো গ্রন্থাগারিকের অনুমতিক্রমে শুধু গ্রন্থাগারের পাঠকক্ষে ব্যবহারের জন্য দেয়া যাবে।

এক সঙ্গে সর্বাধিক দুটো বই বাড়িতে নেয়া যাবে। তবে ইংরেজি বই হলে একসঙ্গে একটার বেশি নেয়া যাবে না।

একমাসের বেশি চাঁদা বাকি পড়লে বই সরবরাহ বন্ধ রাখা হবে।

বই ফেরত দেয়া

বই নেয়ার দু’সপ্তাহের মধ্যে অবশ্যই তা ফেরত দিতে হবে। বিশেষ কারণে তা সম্ভব না হলে অন্য কাউকে বইসহ পাঠিয়ে অথবা পত্রযোগে সদস্যের নাম ও কার্ড নম্বর উল্লেখ করে আবেদনের মাধ্যমে টাইম আরো দুই সপ্তাহ পর্যন্ত বাড়ানো যেতে পারে।

সদস্যের পক্ষ থেকে কোনো অনুরোধ না এলে তৃতীয় সপ্তাহ থেকে এবং অনুরোধ এলে পঞ্চম সপ্তাহ থেকে বই ফেরত না দেয়ার জন্য জরিমানা শুরু হবে। প্রতি সপ্তাহের বিলম্বের জন্য জরিমানা হবে ৫.০০ টাকা হারে। পরবর্তীতে বই নিতে হলে জরিমানার অর্থ পরিশোধ করে বই নেয়া যাবে।

বই হারিয়ে ফেললে বাজার থেকে নতুন বই সংগ্রহ করে দিতে হবে। অন্যথায় বইয়ের দামের দ্বিগুণ পরিশোধ করতে হবে।

সদস্যপদ স্থগিত, বাতিল এবং নবায়ন সংক্রান্ত গ্রন্থাগার কর্তৃপক্ষের ক্ষমতা

যেকোনো সদস্যের সদস্যপদ নবায়ন, স্থগিত বা বাতিল করার ক্ষমতা ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরির কর্তৃপক্ষের থাকবে।

অসাবধানতাবশত কেউ কার্ড হারিয়ে ফেললে, তাঁকে ৫.০০ টাকা নবায়ন ফি দিয়ে নতুন কার্ড করতে হবে। নতুন কার্ড করার সময় নিরাপত্তা অর্থ দানের রশিদ অথবা সর্বশেষ যে মাসের চাঁদা পরিশোধ করা আছে তার রশিদ নিয়ে আসতে হবে। অন্যথায় গ্রন্থাগার কর্তৃপক্ষ রেজিস্টার দেখে সদস্যের চাঁদা ও নিরাপত্তা অর্থের পরিমাণ জেনে নতুন কার্ড সরবরাহ করবেন। এজন্যে ১৫ দিন সময় প্রয়োজন হবে।

সদস্যপদ  বন্ধ করে যদি কেউ বই লেনদেন করা থেকে বিরত থাকেন এবং এ অবস্থায় যদি তাঁর কাছে গ্রন্থাগারের কোনো বই আটকে থাকে তাহলে তাঁর আবেদনের প্রেক্ষিতে ঐ সময়কার চাঁদা গ্রহণ না করার ব্যাপারটি গ্রন্থাগার কর্তৃপক্ষ বিবেচনা করতে পারেন।

অন্যান্য

ঠিকানা পরিবর্তন করলে অবশ্যই পরিবর্তিত ঠিকানা গ্রন্থাগার কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে।

মঙ্গলবার ছাড়া গ্রন্থাগারের সময়সূচি প্রতিদিন কর্মদিবসে রাত আটটা পর্যন্ত।

ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি সিরাজগঞ্জ এর সময়সুচী

শাহজাদপুর উল্লাপাড়া সিরাজগঞ্জ সদর সিরাজগঞ্জ সদর বেলকুচি ও এনায়েতপুর সিরাজগঞ্জ সদর
শনিবার রবিবার সোমবার বুধবার বৃহস্পতিবার শুক্রবার
শাহজাদপুর সরকারী

কলেজ মাঠ

বেলা ৯:০০১০:৩০টা

পশ্চিমাঞ্চল গ্যস

কোম্পানী, নলকা

সকাল ১১:০০১১:৩০টা

বি.এল

সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়

সকাল ৯.০০১০.০০টা

রজব আলী বিজ্ঞান

কলেজ

দুপুর ১:০০:০০টা

বেলকুচি ডিগ্রী কলেজ

মাঠ

সকাল ১১:০০১২:০০টা

সয়াধান গড়া

(জগাই মোড়)

সকাল:০০:০০ টা

পাইলট স্কুল শাহজাদপুর

সকাল ১০:৩০১১:০০টা

ফুলজোড় কলেজ, নলকা

সকাল ১১:৩০১২:০০টা

কালেক্টরেট ̄ স্কুল এন্ড

কলেজ

সকাল ১০:০০১১:০০টা

ভাসানী ডিগ্রী কলেজ,

মুজিব সড়ক

বেলা ২:০০:০০টা

বেলকুচি পল্লী বিদুৎ

সমিতি

বেলা ১২:০০:০০টা

মাসুমপুর (ঈদগাহ্ মাঠ)

সকাল ৯:০০১০:০০টা

শাহজাদপুর পল্লী বিদুৎ

সমিতি

বেলা ১১:০০১২:০০টা

আকবর আলী কলেজ

দুপুর ১২:০০:০০টা

সিরাজগঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়

কলেজ

দুপু র ১১.০০১২.৩০টা

চান্দ আলী মোড়

(হোসেনপুর প্রাথমিক

বিদ্যালয়)

বেলা ৩:০০:০০টা

খাজা ইউনুস আলী

বিশ্ববিদ্যালয়

দুপুর ১:০০:৩০টা

প্রাইম মেডিকেল জজ কোর্ট,

বাস স্ট ̈ান্ড সংলগ্ন

সকাল ১০:০০১০:৩০টা

শাহজাদপুর মহিলা

কলেজ

দুপুর ১২:০০:০০টা

উল্লাপাড়া উপজেলা গেট

(হামিদা বানু পাইলট

উচ্চ বিদ্যালয়

দুপুর ১.০০.০০টা

সালেহা ইসহাক বালিকা

উচ্চ বিদ্যালয়

দুপুর ১২:৩০:০০টা

সবুজ কানন উচ্চ

বিদ্যালয়

বিকাল ৪:০০:০০টা

খাজা ইউনুস আলী

মেডিকেল কলেজ ও

হাসপাতাল (গ্রামীণ

̈াংক)

দুপুর ১:৩০:০০টা

জজ কোর্ট (আম বাগান

কোয়ার্টার)

সকাল ১০:৩০১১:০০টা

উল্লাপাড়া পল্লী বিদুৎ

সমিতি (ষ্টাফ কোয়ার্টার)

উল্লাপাড়া

দুপুর

:০০:০০টা

উল্লাপাড়া বিজ্ঞান কলেজ

বেলা ২.০০.০০টা

জুয়েল্স অক্সফোর্ড স্কুল ̄(ইসলামিয়া কলেজ)

বলা ১.০০.০০টা

̧নেরগাতী প্রভাতী সংসদ

বিকাল ৫:০০:০০টা

গোপিনাথপুর বাজর

বেলা ২:০০:০০টা

উদীচি ক্লাব (চৌরাস্তা মোড়)

দুপুর১১:০০১২:০০ টা

সিরাজগঞ্জ রোড

বেলা ২:০০:০০টা

ভদধঘাট বাজার বাসষ্টান্ড

বিকাল ৩:০০:০০টা

পলিটেকনিক

ইনস্টিটিউট, সিরাজগঞ্জ

বেলা ২.০০.০০টা

জুবলী বাগান (মিলন

মোড়)

সন্ধ ̈া ৬:০০:৩০টা

বেলকুচি উপজেলা স্টাফ

কোয়ার্টার

বেলা ৩:০০:০০টা

হাজী আহম্মদ আলী উচ্চ

বিদ্যালয়

গোষালা

দুপুর ১২:০০১২:১৫টা

শিয়ালকোল বাজার

বিকাল ৪:০০:৩০টা

জুবলী বাগান (থানা

কোয়ার্টার)

সন্ধা ৬:৩০:০০টা

সোমেশপুর উচ্চ বিদ্যালয়

বিকাল ৪.০০.০০টা

ভাসানী মিলনায়তন

দুপ র ু ১২:১৫:০০টা

শিয়ালকোল পল্লী বিদুৎ সমিতি

বিকাল ৪:৩০:০০টা

ষ্টেডিয়াম গেইট (ম্যাটস্)

বেলা ৩.০০.০০টা

নর্থবে১⁄২ল মেডিকেল কলেজ ও

শিশু হাসপাতাল (ধানবান্দী

সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়)

বেলা ৪:০০:০০টা

জেল গেট/পুলিশ লাইন ষ্টাফ

কোয়াটার

বিকাল ৫:০০:০০টা

অপেল গার্ডেন

সন্ধা ৬:০০:০০টা

ষ্টেশন বাজার (’যমুনা প্রবাহ’

অফিস এর সামনে)

রাত ৭:০০:০০টা

স্পটসমূহের সময় বণ্টনের ক্ষেত্রে এক স্পট থেকে পরবর্তী স্পটে উপস্থিত হওয়ার জন্য কোনো অন্তর্বর্তী সময় রাখা হয়নি। এক স্পটে নির্ধারিত সময়

পর্যন্ত কার্যক্রম চালিয়ে পরবর্তী স্পটের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করা হয়, ফলে পরবর্তী স্পটে উপস্থিত হতে স্বাভাবিকভাবেই পথের সময়টুকু বিলম্ব হয়ে

থাকে। 

প্রাকাতিক দুর্যোগ, সরকারি ছুটি, রাজনৈতিক গোলযোগ, গাড়ির যান্ত্রিক ত্র্রুটি কিংবা অন্য কোনো অনিবার্য কারণে ভ্রাম্যমাণ লাইবেধরির বই দেয়ানেয়ার

কাজ বন্ধ থাকতে পারে কিংবা স্পটে উপস্থিত হতে বিলম্ব হতে পারে।

যোগাযোগ

সিরাজগঞ্জ

সহকারী লাইব্রেরীয়ান

মোবাইল:০১৭২১-৬৭২৩০৮

হেড অফিস

বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র

১৭ কাজী নজরুল ইসলাম অ্যাভনিউি

ঢাকা ১০০০

বাংলাদশে

ফোন: ৯৬৬০৮১২, ৮৬১৮৫৬৭

মইেল: [email protected]

Website: www.bskbd.org

……………………………………… আ লো কি ত মা নু ষ চা ই ……………………………………

Summary
ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি সিরাজগঞ্জ
Article Name
ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি সিরাজগঞ্জ
Description
আমাদের দেশের ভালো লাইব্রেরি–ব্যবস্থা দিন দিন উন্নত হচ্ছে ।এর ই ধারাবাহিকতায় লাইব্রেরিগুলো সংখ্যায় বৃদ্ধি হচ্ছে, এদের ব্যবস্থাপনা দুর্বল থেকে উন্নত হচ্ছে, বইয়ের মান দুঃখজনক এবং পরিবেশ বিমর্ষ অবস্তা হলেও ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি আজ তা পরিবর্তন করছে। ভালো বই বাড়িতে নিয়ে পড়ার সুযোগ পাঠকদের আজ নেই বললেই চলে কিন্ত ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি তা পরিবর্তন করেছে। এমন অবস্থা চলতে থাকলে একসময় জাতির মননশীলতা ও জ্ঞানতাত্ত্বিক ভিত্তি মজবুত হবে? বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের পক্ষ থেকে তাই দেশের প্রতিটি বাড়ির দোরগোড়ায় বই পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে।
Author
Publisher Name
Digital Sirajganj
Publisher Logo
  • Views: 231

Send this to a friend