নিমগাছি জয়সাগর দিঘী

Joysagar, Raiganj Upazila, Rajshahi Division, Bangladesh

Details

কোথায় অবস্থিত: জয়সাগর, নিমগাছি, রায়গঞ্জ, সিরাজগঞ্জ।

প্রধান আকর্ষন: প্রায় ৫৮ একর আয়তন এর দিঘী

ইতিহাস: বাংলাদেশের সিরাজগঞ্জ জেলার রায়গঞ্জ উপজেলায় বেশ কয়েকটি প্রাচীন ও ঐতিহাসিক স্থান রয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম একটি প্রাচীন ও ঐতিহাসিক দীঘির নাম জয়সাগর জয়সাগর দীঘি নিয়ে বিভিন্ন রকম জনশ্রুতি আছে কেউ বলেন রাজা তার কয়েকলক্ষ গরু ও প্রজাদের পানি কষ্ট নিবারণের জন্য জয়সাগর দীঘি খনন করেন।

কেউ বলেন, ফিরোজ শাহর পুত্র বাহাদুর শাহ রাজা অচ্যুত সেনের কন্যা ভদ্রাবতীকে দেখে মুগ্ধ হন। বিয়ে প্রস্তাব দিলে রাজা অচ্যুত সেন প্রস্তাবে সম্মত না হওয়ায় বাহাদুর শাহ ভদ্রাবতীকে অপহরণ করে নিমগাছিতে নিয়ে যান। পরবর্তীতে রাজা অচ্যুত সেন তাঁর সৈন্যবাহিনীসহ বাহাদুর শাহকে আক্রমণ করেন। নিমগাছি প্রান্তরে ব্যাপক যুদ্ধ হয়। মুষ্টিমেয় থাকায় বাহাদুর শাহ যুদ্ধেপরাজয়বরণ করেন (১৫৩২৩৪ খ্রি.) । রাজা অচ্যুত সেন যুদ্ধে জয়লাভ করে ভদ্রাবতীকে উদ্ধার করেন। আর এ বিজয়ের স্মৃতি হিসেবে নিমগাছির কাছে রাজা অচ্যুত সেন ‘জয়সাগার’ নামে দিঘিটি খনন করান। যুদ্ধজয়ের কারণেই জয়সাগর নামে দীঘিটির নাম করন করা হয়।

আবার কেউ বলেন রাজার কোনো পুত্রসন্তান ছিল না। একদিন জনৈক সাধু জয় রাজার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বলেন, তিনি যদি আধামাইল দৈর্ঘ্যরে একট দিঘি খনন করেন, তাহলে তাঁর বৃদ্ধ বয়সেও একটি পুত্রসন্তান জন্মাবে। সাধুর উপদেশমতো দিঘি খনন করেন । পরের বছর রাজার একটি সন্তান জন্মালো। পুত্রের নাম রাখলেন জয়কুমার এবং তার নামানুসারে দিঘিটির নাম রাখলেন জয়সাগর।কিন্তু দীঘি খনন করলে কি হবে ১২ বছর পার হওয়ার পরও দিঘিতে পানি না আসায় রাজা হতাশ হয়ে পড়েন। একরাতে রাজা স্বপ্নে দেখলেন, এক সাধু রাজাকে বলছে তোমার পুত্র জয়কুমার বিয়ে করে বাড়ি ফেরার পথে দিঘিতে নেমে যদি একমুঠো মাটি তুলে তবেই দিঘিতে পানি উঠবে, অন্যথায় শতবর্ষ ধরে দীঘি খনন করলেও পানির দেখা মিলবে না।রাজা পুত্রের বিবাহের আয়োজন করলেন। বিবাহ শেষে জয়কুমার স্ত্রীকে নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে দিঘিতে নেমে যেই এক মুঠো মাটি তুললেন, অমনি হুহু শব্দে পানি উঠে দিঘি পূর্ণ হয়ে গেল। তবে এটা ঠিক যে এ এই দীঘির পানিতে রাজার ছেলে জয়কুমার মৃত্যুবরণ করলেন।

এ দীঘি ছাড়াও রাজা অচ্যুত সেন তাঁর সেনাপতি প্রতাপের নামে ‘প্রতাপদিঘি’, ভৃত্য উদয়ের নামে ‘উদয়দিঘি’ এবং কন্যা ভদ্রাবতীর নামে ‘ভদ্রাবতীদিঘি’ খনন করান। ভদ্রাবতীদিঘি থেকে চলনবিলের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত খালটি ভদ্রাবতী নদী বা ভদাই নদী নামে পরিচিত।
কিভাবে যাবেন : রায়গঞ্জ উপজেলা সদর থেকে প্রায় ১২ কিঃ মিঃ দূরে নিমগাছি বাজার। নিমগাছি বাজার থেকে জয়সাগর দীঘির দুরত্ব পশ্চিম দিকে প্রায় ৫০০মিঃ। উপজেলা সদর থেকে বাস, সি এন জি, রিক্সা, মটরসাইকেল ইত্যাদি যোগে জয়সাগর দিঘিতে যাওয়া যায়।
কোথায় থাকবেন: জয় সাগর দিঘির আশেপাশে কোন থাকার যায়গা নেই

 

Summary
নিমগাছি জয়সাগর দিঘী
Article Name
নিমগাছি জয়সাগর দিঘী
Description
ইতিহাস: বাংলাদেশের সিরাজগঞ্জ জেলার রায়গঞ্জ উপজেলায় বেশ কয়েকটি প্রাচীন ও ঐতিহাসিক স্থান রয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম একটি প্রাচীন ও ঐতিহাসিক দীঘির নাম জয়সাগর। জয়সাগর দীঘি নিয়ে বিভিন্ন রকম জনশ্রুতি আছে কেউ বলেন রাজা তার কয়েকলক্ষ গরু ও প্রজাদের পানি কষ্ট নিবারণের জন্য জয়সাগর দীঘি খনন করেন। কেউ বলেন, ফিরোজ শাহর পুত্র বাহাদুর শাহ রাজা অচ্যুত সেনের কন্যা ভদ্রাবতীকে দেখে মুগ্ধ হন। বিয়ে প্রস্তাব দিলে রাজা অচ্যুত সেন প্রস্তাবে সম্মত না হওয়ায় বাহাদুর শাহ ভদ্রাবতীকে অপহরণ করে নিমগাছিতে নিয়ে যান। পরবর্তীতে রাজা অচ্যুত সেন তাঁর সৈন্যবাহিনীসহ বাহাদুর শাহকে আক্রমণ করেন। নিমগাছি প্রান্তরে ব্যাপক যুদ্ধ হয়। মুষ্টিমেয় থাকায় বাহাদুর শাহ যুদ্ধেপরাজয়বরণ করেন (১৫৩২–৩৪ খ্রি.) । রাজা অচ্যুত সেন যুদ্ধে জয়লাভ করে ভদ্রাবতীকে উদ্ধার করেন। আর এ বিজয়ের স্মৃতি হিসেবে নিমগাছির কাছে রাজা অচ্যুত সেন ‘জয়সাগার’ নামে দিঘিটি খনন করান। যুদ্ধজয়ের কারণেই জয়সাগর নামে দীঘিটির নাম করন করা হয়।
Author
Publisher Name
Digital Sirajganj
Publisher Logo
  • Views: 313

Send this to a friend